প্রকাশিত : ৬ জুলাই, ২০২১ ১৬:০৯

স্বামীর কবরের পাশে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন ফেরদৌস আরা খাঁন

গাবতলী (বগুড়া) প্রতিনিধি
স্বামীর কবরের পাশে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন ফেরদৌস আরা খাঁন

বগুড়ার গাবতলী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রয়াত এ এইচ আজম খাঁন’র স্ত্রী, বগুড়া পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও গাবতলী উপজেলা চেয়ারম্যান রফি নেওয়াজ খাঁন রবিন এর শ্বাশুরী, জেলা পরিষদ সদস্য এ আই ফয়সাল খাঁন জনি’র মা এবং গত সংসদ নির্বাচনে এমপি প্রার্থী ফেরদৌস আরা খাঁন স্বামীর কবরের পাশে চিরনিদ্রায় শায়িত হয়েছেন।

সোমবার বাদ যোহর গাবতলীর রামেশ্বরপুর ইউনিয়নের জাগুলী হাইস্কুল মাঠে তাঁর নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। শেষে স্বামীর কবরের পাশে দাফন সম্পন্ন করা হয়।

এতে শরিক হয়ে ছিলেন বগুড়া সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আবু সফিয়ার সফিক, শাজাহানপুর উপজেলা চেয়ারম্যান সোহারাব হোসেন সান্নু, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আলহাজ¦ ইমরান হোসেন রিবন, বগুড়া পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু ওবাইদুর হাসান ববি, গাবতলী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি (ভারঃ) আব্দুস সালাম ভূলন, সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক মিলু, যুগ্ম সম্পাদক আব্দুল গফুর, মিজানুর রহমান মিজান, জাহাঙ্গীর আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক মোমিনুল হক শিলু, এসএম লতিফুল বারী মিন্টু চেয়ারম্যান, জেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক মঞ্জুরুল হক মঞ্জু, বগুড়া পৌর আওয়ামী লীগ নেতা এ্যাডোনিস তালুকদার বাবু, শাহীন, শেখ শামীম, মিজানুর রহমান বকুল, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম মুক্তা, বগুড়া পৌর কাউন্সিলর আরিফুল ইসলাম আরিফ, গাবতলী পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আজিজার রহমান পাইকার, সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন দিলু, রামেশ^রপুর ইউপি চেয়ারম্যান সেকেন্দার আলী, মহিষাবান ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ¦ আমিনুল ইসলাম, দুর্গাহাটা ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মতিন মিঠু, নাড়–য়ামালা ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল গোফ্ফার, দক্ষিনপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম সাইফুল, শিক্ষক রেজাউল বারী, জহুরুল ইসলাম, আব্দুস সবুর পিন্টু, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি ফারুক আহম্মেদ, সাধারণ সম্পাদক রাশেদ ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক রিপন মিয়া, উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি আব্দুল্লাহেল বাকী, সাধারণ সস্পাদক কাউন্সিলর শাহজাহান আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু জাহিদ পায়েল, জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জিহাদ আল হাসান জুয়েল, পৌর যুবলীগের সভাপতি কাউন্সিলর হযরত আলী হিরন পাইকার, সাংগঠনিক সম্পাদক মনির ইসলাম পিপুল, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান পান্না, আওয়ামী লীগ ও সহযোগি সংগঠনের ফজলুল বারী নয়ন, জাহাঙ্গীর আলম, এ্যাডঃ রফিকুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা আমজাদ হোসেন টুকু, নজরুল ইসলাম বাদশা, রেজাউন নবী আলমগীর, তোফাজ্জল হোসেন, আব্দুর রহিম মোল্লা, মজিবুর রহমান আলতাব, শাহনেওয়াজ জাকি, মাহমুদুল হাসান ডাবলু চৌধুরী, আব্দুল লতিফ লাটিম, ফেরদৌস হোসেন মিঠু, জিল্লুর রহমান শাকিল, আবু হায়াত সুইট, ইউসুফ আলীসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ, সরকারী কর্মকর্তাগণ ও বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ।

উল্লেখ্য, ফেরদৌস আরা খাঁন নানা রোগে আক্রান্ত হয়ে ঢাকাস্থ বাংলাদেশ স্পেশালাইজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৪জুলাই/২১ রোববার বেলা আনুমানিক পৌনে ৩টায় দুনিয়ার মায়া ত্যাগ করে না ফেরার দেশে চলে যান।

 

উপরে