প্রকাশিত : ১০ জুন, ২০২২ ২১:১৯

প্রেস ইউনিটির সমাবেশে সংবাদযোদ্ধাদের নিরাপত্তা দাবি

প্রেস বিজ্ঞপ্তি
প্রেস ইউনিটির সমাবেশে সংবাদযোদ্ধাদের নিরাপত্তা দাবি
সংবাদযোদ্ধাদের নিরাপত্তা দেয়ার দায়িত্ব সরকারের, সরকার সেই দায়িত্ব পালন না করে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের নামে অনিরাপদ দেশ-সমাজ সৃষ্টি না করে সংবাদযোদ্ধাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার দাবি জানিয়েছে অনলাইন প্রেস ইউনিটির নেতৃবৃন্দ।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংস্কার, সাগর-রুণীসহ সকল হত্যার বিচার এবং সংবাদযোদ্ধা মামুনুর রশীদ নোমানীর উপর হামলাকারীদের অনতিবিলেম্ব গ্রেফতার ও বিচারের দাবিতে অনলাইন প্রেস ইউনিটির প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানবন্ধনে এ দাবি জানান তারা। ১০ জুন সকাল ১১ টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অনুষ্ঠিত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন অনলাইন প্রেস ইউনিটির প্রতিষ্ঠাতা মোমিন মেহেদী। অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন দৈনিক জনতার সংবাদ-এর সম্পাদক, সংবাদপত্র পরিষদের সহ-সভাপতি ও প্রেস ইউনিটির উপদেষ্টা বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. শাহজাহান আলী। সংহতি প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন অনলাইন প্রেস ইউনিটির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান শান্তা ফারজানা, জাতীয় প্রেসক্লাবের সদস্য মিজান রহমান, প্রেস ইউনিটির সদস্য আল আমিন মুন্না, মেহেন্দিগঞ্জ টাইমস-এর সম্পাদক রুবেল তালুকদার, বাদল দাস, মিজানুর রহমান, মো. তুহিন প্রমুখ।

এসময় নেতৃবৃন্দ বলেন, নোমানী নির্ভীক সংবাদযোদ্ধা হিসেবে বরিশালে দীর্ঘদিন যাবৎ কাজ করে যাচ্ছে। তার উপর এমন ন্যাক্কারজনক হামলার সাথে জড়িতদের দ্রুত বিচারের আওতায় আনা না হলে এভাবেই একের পর এক হামলা চলতে থাকবে সংবাদযোদ্ধাদের উপর। যা আমরা কেউ চাই না। অনতিবিলম্বে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংস্কার করা না হলে যে কেউ যখন তখন মিথ্যে মামলায় আমাদের সংবাদযোদ্ধাদেরকে হয়রানী করবে; অতএব, যত দ্রুত সম্ভব এই আইন সংস্কার করুন।
 
উল্লেখ্য, সংবাদমাধ্যম ও সংবাদযোদ্ধাবান্ধব বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে ২০০৯ সালে জাতীয় প্রেসক্লাব থেকে আত্মপ্রকাশের মধ্য দিয়ে এগিয়ে চলা অনলাইন প্রেস ইউনিটির কার্যক্রমকে আরো গতিশীল করতে সারাদেশে সদস্য সংগ্রহ কর্মসূচি চলছে। আগ্রহী সংবাদযোদ্ধাগণ নাম-ঠিকানা-কর্মরত গণমাধ্যমের নাম ও জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর লিখে এসএমএস করুন-০১৫৭২৩০৯৮৭৪ নম্বরে।   
 
উপরে