প্রকাশিত : ১৮ নভেম্বর, ২০২৩ ১২:৪৭

আদমদীঘিতে দামোদর উৎসব-প্রদীপ প্রজ্জ্বলন অনুষ্ঠিত

আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ
আদমদীঘিতে দামোদর উৎসব-প্রদীপ প্রজ্জ্বলন অনুষ্ঠিত

বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলা সদরের চড়কতলা রাধাগোবিন্দ কেন্দ্রীয় মন্দিরে দামোদর উৎসব ও প্রদীপ প্রজ্জ্বলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। পরেমেশ্বর ভগবান শ্রীকৃষ্ণের আরেক নাম দামোদর। “দাম”শব্দের অর্থ রশি এবং “উদর” হচ্ছে কোমর। মা যশোদা কর্তৃক যাঁর উদরে দাম বা রশি বন্ধন রয়েছে তিনিই দামোদর। বৈদিক সংস্কৃতিতে সুপ্রাচীর কাল হতে কার্তিক ব্রত বা দামোদর ব্রত পালিত হয়ে আসছে। এই ধারাবাহিকতায় আদমদীঘি উপজেলা সদরের চড়কতলা কেন্দ্রীয় রাধাগোবিন্দ মন্দিরে পুরো কার্তিক মাস ব্যাপী দামোদর ব্রত উপলক্ষে ঘি-কর্পূরের প্রদীপ প্রজ্জলন করা হয়।

গত বৃহস্পতিবার(১৬ নভেম্বর) রাত ৮টায় দামোদর উৎসব ও ঘি-কর্পূরের প্রদীপ প্রজ্বলন উৎসবের আনুষ্ঠিত পরিসমাপ্তি ঘটে।  আন্তর্জাতিক কৃষ্ণভাবনামৃত সংঘ বগুড়া ইসকনের ভক্ত ও ধর্মপ্রচারক মনোরঞ্জন চন্দ্র পাল বলেন, দামোদর মাস বা কার্তিক মাস সনাতন ধর্মালম্বীদের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ন মাস। এই মাস ত্যাগের মাস হিসেবেও পরিচিত। এই পূণ্য মাসে ভগবানের উদ্দেশ্যে কেউ যদি একটি প্রদীপ দান করে তবে তার সমস্ত পাপ নাশ হবে। তাই সকল সনাতন ধর্মালম্বীরা কার্তিক মাসে নিরামিষ ভোজন করে ঘি-কর্পূরের প্রদীপ প্রজ্জলন করে থাকে। দামোদর উৎসব ও প্রদীপ প্রজ্বলন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ পুজা উদযাপন পরিষদ আদমদীঘি উপজেলা শাখার সাধারন সম্পাদক মিহির কুমার সরকার, আন্তর্জাতিক কৃষ্ণভাবনামৃত সংঘ বগুড়া ইসকনের ভক্ত ধর্মপ্রচারক সুমন চন্দ্র রায়,ধনপতি বর্মন,স্বপন কুমার দেবনাথ ও স্থানীয় সংগীত শিক্ষক সুভাষ কুমার সরকার সহ শত শত ভক্তবৃন্দ। এছাড়াও উপজেলা সদরের তালসন কালীবাড়ী রাধাগোবিন্দ মন্দির ও সান্তাহার রেলওয়ে মন্দিরে দামোদর ব্রত উপলক্ষে মাসব্যাপী প্রদীপ প্রজ্জলন অনুষ্ঠিত হয়। 

 

উপরে