প্রকাশিত : ১৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪ ২৩:৩৬

সুশীল সমাজ গঠনে শিক্ষার্থীদের খেলাধুলায় অংশ নিতে হবে: এসপি সুদীপ

ষ্টাফ রিপোর্টার
সুশীল সমাজ গঠনে শিক্ষার্থীদের খেলাধুলায় অংশ নিতে হবে: এসপি সুদীপ

রোববার বগুড়া পুলিশ লাইন স্কুল অ্যান্ড কলেজের ৩৯তম বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এদিন বেলা ২টায় অত্র প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ শাহাদৎ আলম ঝুনুর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি জেলা পুলিশ সুপার (পদোন্নতিপ্রাপ্ত অতিরিক্ত ডিআইজি) সুদীপ কুমার চক্রবর্ত্তী বিপিএম, পিপিএম ফেষ্টুন ও পায়রা উড়িয়ে ক্রীড়া প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন। উদ্বোধনের সাথে সাথে শিক্ষার্থীরা মার্চলিপাসড এবং মহান ভাষা শহীদ ও বাঙালী ঐতিহ্যের সমন্বয়ে মনোজ্ঞ ডিসপ্লে পরিবেশন করেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে পুলিশ সুপার বলেন, শিক্ষার্থীদের পড়াশোনার পাশাপাশি ক্রীড়ার সাথে যুক্ত হতে হবে। ক্রীড়ার মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা একটি সুশীল চেতনায় উদ্বুদ্ধ হওয়ার সুযোগ পেয়ে যায়। ক্রীড়ার সাথে যুক্ত কোনো শিক্ষার্থী কখনও মাদক, সন্ত্রাসের মত অপকর্মের সাথে জড়িত হয় না। প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মেধাবী শিক্ষার্থীদের অধিকাংশ শিক্ষার্থী ক্রীড়ার সাথে যুক্ত থাকে। তারা তাদের বিদ্যাপীঠের গৌরব বয়ে আনে বিভিন্ন ক্রীড়ায় অংশ নিয়ে কৃতিত্ব অর্জন করে। সুশিল সমাজ গঠনে শিক্ষার্থীদের খেলাধুলায় অংশ নিতে হবে। পুলিশ লাইন্স স্কুল অ্যান্ড কলেজের অনেক শিক্ষার্থী এখন দেশের ক্রীড়া ক্ষেত্রে অবদান রাখছে। তাদের মধ্যে জাতীয় ক্রিকেট দলের অন্যতম খেলোয়াড় শফিউল ইসলাম, তৌহিদ হৃদয়। যারা এই বিদ্যাপীঠ থেকে বেড়ে উঠে, তারাই এখন দেশের জন্য গৌরবে পরিণত হয়েছে। তাই তোমাদেরকেও এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মান অক্ষুন্ন রাখতে ভাল ফলাফলের পাশাপাশি ক্রীড়া ক্ষেত্রে নিজেদের অবস্থান নিশ্চিত করার আহ্বান জানান শিক্ষার্থীদের।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) আফসানা ইয়াসমিন, র‌্যাব-১২ বগুড়া ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার (পুলিশ সুপার) মীর মনির হোসেন, জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) ও পদোন্নতিপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার স্নিগ্ধ আকতার, জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) ও পদোন্নতিপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার মোতাহার হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ট্রাফিক) সুমন রঞ্জন, জেলা শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী মো আরিফুজ্জামান, জেলা শিক্ষা অফিসার হযরত আলী, গভনিং বডির সদস্য সাইরুল ইসলাম। বিকেল ৫টায় ৩৯তম বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা মোট ৮৬টি ইভেন্টে বিজয়ী প্রতিযোগীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন অতিথিরা।

উপরে