logo
আপডেট : ২৮ মে, ২০২২ ১৬:৪৫
২০ বছর কারাভোগের পর মুক্তি পেলেন জাপানের রেড আর্মির সহ-প্রতিষ্ঠাতা
অনলাইন ডেস্ক

২০ বছর কারাভোগের পর মুক্তি পেলেন জাপানের রেড আর্মির সহ-প্রতিষ্ঠাতা

দীর্ঘ ২০ বছর কারাভোগের পর অবশেষে মুক্তি পেলেন জাপানের সশস্ত্র গোষ্ঠী রেড আর্মির সহ-প্রতিষ্ঠাতা। ১৯৭৪ সালে দূতাবাস ঘেরাওয়ের ঘটনায় সম্পৃক্ততার দায়ে কারাদণ্ড হয়েছিল তার।

বিবিসি জানিয়েছে, ৭৬ বছর বয়সী ফুসাকো শিগেনবু ২০০০ সালে ওসাকায় গ্রেপ্তার হওয়ার আগে বহু বছর গ্রেপ্তার এড়িয়ে ছিলেন। তার একসময়ের সশস্ত্র গোষ্ঠীটি সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে বিশ্বব্যাপী সমাজতান্ত্রিক বিপ্লবকে উসকে দেওয়ার পরিকল্পনা করেছিল।

১৯৭৪ সালে নেদারল্যান্ডসের হেগেতে অবস্থিত ফরাসি দূতাবাসে হামলার দায়ে ফুসাকো শিজেনোবুকে কারাদণ্ড দেওয়া হয়। রেড আর্মির তিন সশস্ত্র যোদ্ধা প্রায় ১০০ ঘণ্টা ধরে ফরাসি রাষ্ট্রদূত ও আরও কয়েকজনকে জিম্মি করে রেখেছিলেন। রেড আর্মির এক সদস্যকে ফ্রান্স মুক্ত করে দেওয়ার পর ওই গোষ্ঠী সিরিয়ায় চলে যায় এবং জিম্মিদশার অবসান ঘটে।
হামলায় সরাসরি অংশ না নিলেও হামলায় সমন্বয়কারী হিসেবে অভিযুক্ত করে ও তাতে জড়িত থাকার অভিযোগে ২০০৬ সালে ফুসাকো শিজেনোবুকে ২০ বছরের কারাদণ্ড দেন জাপানের একটি আদালত।

রায়ের পাঁচ বছর আগেই বিচার চলাকালে তিনি রেড আর্মি বিলুপ্ত ঘোষণা করেন এবং আইনের মাধ্যমে নতুন করে লড়াই শুরুর ঘোষণা দেন। সর্বশেষ ১৯৮৮ সালে ইতালিতে যুক্তরাষ্ট্রের একটি সামরিক ক্লাবে রেড আর্মি গাড়িবোমা হামলা চালিয়েছিল বলে জানা যায়।

কারাগার থেকে মুক্তি পাওয়ার পর ফুসাকো শিজেনোবু নিজেদের লক্ষ্য অর্জনে ‘নিরপরাধ মানুষের ক্ষতি’ করায় সবার কাছে ক্ষমা চেয়েছেন। ১৯৭২ সালে তেল আবিবের লোদ বিমানবন্দরে হামলায় ২৬ জনের মৃত্যুর জন্যও অনুশোচনা প্রকাশ করেন তিনি।