logo
আপডেট : ৭ আগস্ট, ২০২২ ২১:২৮
বগুড়ায় বিশ্ব বন্ধু দিবসে কোচ চালকদের মিষ্টিমুখ করালো বাইকাররা
প্রেস বিজ্ঞপ্তি

বগুড়ায় বিশ্ব বন্ধু দিবসে কোচ চালকদের মিষ্টিমুখ করালো বাইকাররা

বিশ্ব বন্ধু দিবসে বগুড়ায় বাইকার ও কোচ চালকদের মেলবন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার বিকেল শহরের ঠনঠনিয়া ঢাকা বাস টার্মিনালে বিভিন্ন কোচের চালকদের সাথে বাইকাররা কথা বলেন ও মিষ্টিমুখ করান এবং উপহার হিসেবে ফুল ও টি-শার্ট তুলে দেন কোচ চালকদের হাতে।
 
বিশ্ব বন্ধু দিবসে এসময় বাইকাররা বিভিন্ন ধরনের প্লেকার্ড হাতে নিয়ে দাড়ায় বাস টার্মিনালে। প্লেকার্ড গুলোতে "গতিসীমা মেনে গাড়ি চালান, চোখে ঘুম নিয়ে গাড়ি চালাব না, ট্যাফিক সিগন্যাল মেনে চলব, হেলমেট ছাড়া বাইক চালাবো না, ঘন ঘন লেন পরিবর্তন করব না" সহ বেশ কিছু সচেতনতা মূলক কথা।
 
এসময় বাইকার বিশ্ব বন্ধু দিবসের আয়োজনে উপস্থিত ছিলেন বগুড়া জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের ধর্মীয় সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন পিন্টু, ইয়ামাহা রাইডার্স ক্লাব বগুড়ার উপদেষ্টা ও ইয়ামাহা বগুড়ার ডিলার আব্দুল মোত্তালিব মানিক, এসিআই মটরস'র টেরিটরি সার্ভিস ম্যানেজার উত্তম দে এবং বগুড়া ইয়ামাহা রাইডার্স ক্লাবের গ্রুপের সদস্যরা ও অন্যান্য বাইকার গ্রুপের সদস্যরা ও বিভিন্ন কোচ চালকরা। 
 
বগুড়া জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের ধর্মীয় সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন পিন্টু বলেন, মোটর সাইকেল চালক ও বাইকারদের এই আয়োজন সত্যি  অসাধারণ। সড়কে সবাই নিরাপদে চলাচল করতে পারবে। সকলে চলাচল একে অপরের সাথে মেলবন্ধন গড়ে উঠবে। যাতে সড়কে শৃংখলার সাথে সবাই চলা ফেরা করতে পারে। সকলেই সচেতন থাকতে হবে।
 
ইয়ামাহা রাইডার্স ক্লাব বগুড়ার উপদেষ্টা ও ইয়ামাহা বগুড়ার ডিলার আব্দুল মোত্তালিব মানিক বলেন, বিশ্ব বন্ধু দিবসে বাইকার ও গাড়ি চালকদের মাঝে মেলবন্ধন তৈরিতে আমাদের এই আয়োজন। সড়ক ও মহাসড়কে আমাদের সকল বাইকার ও গাড়ি চালকরা যাতে নিরাপদ চলাচল করতে পারে। কেউ যেন কোন কারণে কারও ক্ষোভের শিকার না হয়।