logo
আপডেট : ৬ নভেম্বর, ২০২৩ ১৪:০৭
তুরস্কে মার্কিন ঘাঁটিতে বিক্ষোভকারীদের হামলা
অনলাইন ডেস্ক

তুরস্কে মার্কিন ঘাঁটিতে বিক্ষোভকারীদের হামলা

তুরস্কের দক্ষিণাঞ্চলীয় প্রদেশ আদানার ইনকিলরিক শহরের মার্কিন বিমান ঘাঁটিতে হামলা চালিয়েছেন ফিলিস্তিনপন্থি বিক্ষোভকারীরা। আইএইচএইচ হিউম্যানিটেরিয়ান রিলিফ ফাউন্ডেশন নামের একটি ইসলামিক সহায়তা সংস্থা এই বিক্ষোভ সংগঠিত করেছে।

গতকাল রোববার মার্কিন পররাষ্টমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন গাজা সংকট নিয়ে আলোচনার জন্য আঙ্কারায় আসার দুই ঘণ্টা আগে ফিলিস্তিনিপন্থী সমাবেশের শত শত লোক মানুষ মার্কিন সেনাদের বিমান ঘাটিটিতে তাণ্ডব চালানোর চেষ্টা করে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রকাশিত ছবি ও ভিডিওতে দেখা গেছে, বিক্ষোভকারীরা ব্যারিকেড ভেঙে বিমান ঘাঁটিতে প্রবেশের চেষ্টা করছেন এবং পুলিশ টিয়ার শেল ও স্মোক বম্ব ছুড়ে তাদের ছত্রভঙ্গ করার চেষ্টা করছে।

জবাবে বিক্ষোভকারীদেরকেও পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল, প্লাস্টিকের চেয়ার ও অন্যান্য জিনিস ছুড়তে দেখা গেছে। পুলিশের সঙ্গে হাতাহাতিতেও জড়াতে দেখা গেছে অনেককে। তবে কিছু সময় এই অবস্থা চলার পর তাদের সরিয়ে দিতে সক্ষাম হয়েছে পুলিশ।

বিক্ষোভের সংগঠক আইএইচএইচ হিউম্যানিটেরিয়ান রিলিফ ফাউন্ডেশনের প্রেসিডেন্ট বুলেন্ত ইয়িলদিরিম বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছেন, হামাস ও ইসরায়েলের চলমান যুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান নিয়ে তুরস্কের জনগণ ক্ষুব্ধ এবং তারা চায় তুরস্ক থেকে সব মার্কিন সেনা বিদায় হোক।

ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলের নির্বিচার বোমা হামলার ঘটনায় মুসলিম দেশগুলোর মধ্যে তুরস্ক ইসরায়েলের সবচেয়ে বেশি সমালোচনা করে আসছে। দেশটি ফিলিস্তিনের জন্য আলাদা রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার দাবি জানিয়েছে।

অবরুদ্ধ গাজায় রক্তপাতের প্রতিবাদে ইসরাইলে নিযুক্ত তুর্কি রাষ্ট্রদূত প্রত্যাহার করে নিয়েছে তুরস্ক। সেই সঙ্গে ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেন ইয়ামিন নেতানিয়াহুর সঙ্গেও যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করছে দেশটি। 

গাজায় আগ্রাসন চালাতে ইসরায়েলকে অস্ত্রের পাশাপাশি আর্থিক সহায়তা দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র।