logo
আপডেট : ৮ নভেম্বর, ২০২৩ ১৩:৫৭
বগুড়ায় জামায়াত নেতাকর্মীদের সাথে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া
অনলাইন ডেস্ক

বগুড়ায় জামায়াত নেতাকর্মীদের সাথে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া

বিরোধী দলের ডাকা ৩য় দফার ৪৮ ঘন্টা অবরোধের প্রথম দিনে জামায়াত নেতাকর্মীদের সাথে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে।

আজ বুধবার সকালে দ্বিতীয় বাইপাস সড়কের সাবগ্রাম এবং বগুড়া-রংপুর মহাসড়কের বাঘোপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

জামায়াতের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে, পুলিশের রাবার বুলেট এবং টিয়ারশেল নিক্ষেপে অন্তত ১০জন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন।

অপরদিকে, পুলিশ বলছে, পুলিশের উপর আক্রমণ হওয়ায় যথাযথ নিয়ম মেনে তাদের প্রতিহত করা হয়েছে। 

জানা গেছে, বুধবার সকাল আনুমানিক ৭টার দিকে বগুড়া ২য় বাইপাস মহাসড়কের সাবগ্রাম এলাকায় মহাসড়ক অবরোধ করে জামায়াত ইসলামী বগুড়া শহর শাখার আমির অধ্যক্ষ আবিদুর রহমান সোহেলের নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল বের হয়। এক পর্যায়ে মহাসড়ক থেকে সড়ে যেতে বললে পুলিশ ও ডিবির সদস্যদের সাথে জামায়েত নেতাকর্মীদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া শুরু হয়। এসময় একাধিক ককটেল বিস্ফোরণ এবং পুলিশের পক্ষ থেকে রাবার বুলেট ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করা হয়। 

একই সময়ে বগুড়া-রংপুর মহাসড়কের বাঘোপাড়া এলাকায় জামায়াত ইসলামীর নেতাকর্মীরা মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিল শেষে সমাবেশ চলাকালে পুলিশের সাথে জামায়াত নেতাকর্মীদের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া শুরু হয়। 

জামায়াত ইসলামী বগুড়া শহর শাখার আমির অধ্যক্ষ আবিদুর রহমান সোহেল বলেন, 'শান্তিপূর্ণ মিছিলে পুলিশের গুলি বর্ষন করেছে। এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। এতে আমাদের দশজন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন।'

জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদ্য পদোন্নতিপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার) স্নিগ্ধ আখতার বলেন, 'জামায়াতের নেতাকর্মীরা মহাসড়ক অবরোধ করেছিল। পুলিশ তাদের সরে যেতে বললে তারা পুলিশের উপর হামলা এবং ককটেল নিক্ষেপ করে। পরে পুলিশ যথাযথ নিয়ম মেনে তাদের প্রতিহত করেছে।'