প্রকাশিত : ১৬ নভেম্বর, ২০২১ ১৬:১৩

সমকামী আইনজীবীকে দিল্লির বিচারপতি করার সুপারিশ

অনলাইন ডেস্ক
সমকামী আইনজীবীকে দিল্লির বিচারপতি করার সুপারিশ

ভারতের রাজধানী দিল্লির হাই কোর্টের বিচারপতি পদে অভিজ্ঞ আইনজীবী সৌরভ কীর্পালের পদোন্নতির সুপারিশ করেছে সুপ্রিম কোর্ট। শীর্ষ আদালতের কলেজিয়ামের এই সিদ্ধান্তকে ‘ঐতিহাসিক’ বলছে আইনজীবী মহল।

ভারতের বিচার ব্যবস্থার ইতিহাসে এই প্রথম একজন সমকামী আইনজীবীকে বিচারপতি পদে বসানোর সুপারিশ করলো সর্বোচ্চ আদালত। শুধু তাই নয়, দিল্লি হাই কোর্টের বিচারপতি পদে কীর্পালকে নিয়োগ করা হলে তিনিই হবেন ভারতের প্রথম সমকামী বিচারপতি।

২০১৭ সালের অক্টোবরে দিল্লি হাই কোর্টের কলেজিয়াম প্রথম কীর্পালের পদোন্নতির সুপারিশ করেছিল। তারপর আরও বেশ কয়েক বার তার নাম উঠে আসে। কিন্তু প্রত্যেক বারই বিলম্বিত হয়েছে কীর্পালের পদোন্নতির প্রক্রিয়া।

চলতি বছরের মার্চে সুপ্রিম কোর্টের প্রাক্তন প্রধান বিচারপতি এসএ বোবদে দিল্লি হাই কোর্টের বিচারপতি পদে কীর্পালের পদোন্নতি নিয়ে কেন্দ্রের অবস্থানও জানতে চেয়েছিলেন।

তারপরই গত ১১ নভেম্বর শীর্ষ আদালতের কলেজিয়ামের বৈঠকে কীর্পালের নাম সুপারিশ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে আইনজীবী ইন্দিরা জয়সিং এক টুইট বার্তায় লিখেছেন, হাই কোর্টের প্রথম সমকামী বিচারপতি হতে চলেছেন সৌরভ কীর্পাল। তাকে অনেক শুভেচ্ছা। শেষ পর্যন্ত যৌন বিষয়ক বৈষম্যের ঊর্ধ্বে উঠে সব ধরনের মানুষদের নিয়ে তৈরি হচ্ছে আমাদের বিচার ব্যবস্থা।

দিল্লির স্টিফেন কলেজ থেকে পাশ করে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে আইন নিয়ে পড়াশোনা করেছেন কীর্পাল। স্নাতকোত্তর পাশ করেছেন কেজব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে। দুই দশকের বেশি সময় ধরে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী তিনি। ২০১৮ সালে অনুচ্ছেদ ৩৭৭ বাতিলের মামলায় মামলাকারীদের আইনজীবী ছিলেন কীর্পাল।

 

উপরে