প্রকাশিত : ২ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ১৪:১২

ভোট কারচুপির দায়ে সুচির ৩ বছরের কারাদণ্ড

অনলাইন ডেস্ক
ভোট কারচুপির দায়ে সুচির ৩ বছরের কারাদণ্ড

নির্বাচনে ভোট কারচুপির দায়ে মিয়ানমারের ক্ষমতাচ্যুত নেত্রী অং সান সু চিকে তিন বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। আজ শুক্রবার (২ সেপ্টেম্বর) রাজধানী নেপিদোতে স্থাপিত সেনা সরকারের একটি বিশেষ আদালত এই রায় ঘোষণা করেন। খবর রয়টার্সের।

২০২১ সালের ফেব্রুয়ারিতে সেনা অভ্যুত্থানে ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার আগে পাঁচ বছর মিয়ানমারের নেতৃত্ব দেন এই নোবেলজয়ী। তাঁর বিরুদ্ধে ১৮টি অভিযোগ আনা হয়েছে। দোষী সাব্যস্ত হলে এসব মামলায় তাঁর সর্বোচ্চ ১৯০ বছর সাজা হতে পারে। এরই মধ্যে তাঁকে দুর্নীতি ও উসকানিসহ বেশ কয়েকটি অপরাধে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে।

সু চি তাঁর বিরুদ্ধে আনা সব অভিযোগকে ভিত্তিহীন বলে অস্বীকার করেছেন। বর্তমানে দেশটির রাজধানী নেপিদোর একটি নির্জন কারাগারে বন্দি রয়েছেন তিনি। অন্যান্য কয়েকটি মামলায় দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় এরই মধ্যে তাঁকে ১৭ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

অং সান সু চি নেতৃত্বাধীন নির্বাচিত সরকারকে সেনাবাহিনী গত বছর ক্ষমতাচ্যুত করার পর থেকে ব্যাপক অস্থিতিশীলতার মুখোমুখি হয়েছে মিয়ানমার। সাধারণ নির্বাচনে সু চির দল এনএলডি জয় পাওয়ার পর সেনা-সমর্থিত রাজনৈতিক দলগুলো জালিয়াতির অভিযোগ করে।

পরে বিরোধীদের এই অভিযোগে সমর্থন জানিয়ে সু চি নেতৃত্বাধীন সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করে দেশের ক্ষমতা দখলে নেয় সেনাবাহিনী।

উপরে