প্রকাশিত : ৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ২২:১১

শ্রীলঙ্কার সংকটের জন্য দায়ী মানবাধিকার লঙ্ঘন: জাতিসংঘ

অনলাইন ডেস্ক
শ্রীলঙ্কার সংকটের জন্য দায়ী মানবাধিকার লঙ্ঘন: জাতিসংঘ

শ্রীলঙ্কার বর্তমান অর্থনৈতিক দুর্দশার জন্য শুধু দেশটিতে সংঘটিত অর্থনৈতিক অপরাধ আর দুর্নীতি দায়ী নয়, বরং অতীত ও বর্তমানের মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনায় কোনো শাস্তি না হওয়ার বিষয়টিও রয়েছে। গত মঙ্গলবার প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এ মন্তব্য করেছে জাতিসংঘ।

সংস্থার মানবাধিকার কমিশনার মিশেল বাশেলেতের তৈরি ওই প্রতিবেদনে শ্রীলঙ্কার বর্তমান সংকট থেকে উত্তরণের সুপারিশও করা হয়। বলা হয়, বর্তমান সংকট সমাধানে দেশটিতে মৌলিক পরিবর্তন আনা প্রয়োজন।

অতীতের মতো মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা যেন আর না ঘটে, সেটা নিশ্চিত করার কথাও জাতিসংঘের প্রতিবেদনে বলা হয়।

১৯৪৮ সালে স্বাধীনতা অর্জনের পর এবারই সবচেয়ে ভয়াবহ অর্থনৈতিক সংকট পার করছে শ্রীলঙ্কা। সব নিত্যপণ্যের সংকটে লঙ্কানদের প্রাণ যায় যায়। দেউলিয়া হয়ে যাওয়া সরকার বিদেশি ঋণ পরিশোধে নিজেদের অক্ষমতা স্বীকার করে নিয়েছে। পদত্যাগ করতে বাধ্য হয়েছেন মাহিন্দা রাজাপক্ষে ও গোতাবায়া রাজাপক্ষে।

পরিস্থিতি মোকাবেলায় আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) কাছ থেকে আগামী চার বছরে ২৯০ কোটি মার্কিন ডলার ঋণ নেওয়ার ব্যাপারে প্রাথমিক ঐকমত্যে পৌঁছেছে প্রেসিডেন্ট রনিল বিক্রমাসিংহের নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকার। এর মধ্যে প্রকাশিত হলো দেশটির পরিস্থিতি নিয়ে জাতিসংঘ মানবাধিকার কমিশনের প্রতিবেদন।

সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় আগামী ১২ সেপ্টেম্বর থেকে ৭ অক্টোবর পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে জাতিসংঘ মানবাধিকার পরিষদের ৫১তম অধিবেশন। ওই অধিবেশনে শ্রীলঙ্কার বিষয়ে একটি প্রস্তাব উত্থাপন করা হতে পারে। সংস্থাটির মানবাধিকার পরিষদের সেই অধিবেশনের আগে শ্রীলঙ্কা নিয়ে প্রকাশিত প্রতিবেদনটিকে গুরুত্বের সঙ্গে দেখছেন পর্যবেক্ষকরা।

শ্রীলঙ্কার বর্তমান অর্থনৈতিক সংকটের জন্য মানবাধিকার লঙ্ঘনকে দায়ী করে এ ধরনের প্রতিবেদন এটাই প্রথম বলে উল্লেখ করেছে ভারতের সংবাদ সংস্থা পিটিআই। সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া

উপরে