প্রকাশিত : ২ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ২০:০২

টেকসই শান্তি ও উন্নয়ন প্রচেষ্টায় অবদান রাখবে বাংলাদেশ: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক
টেকসই শান্তি ও উন্নয়ন প্রচেষ্টায় অবদান রাখবে বাংলাদেশ: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

জাতিসংঘ পুলিশের গর্বিত সদস্য হিসেবে টেকসই শান্তি ও উন্নয়নের জন্য এর যেকোনো উদ্যোগে অবদান রাখার অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করেছে বাংলাদেশ। বৃহস্পতিবার নিউইয়র্কের জাতিসংঘ পুলিশ প্রধানদের সম্মেলন উপলক্ষে আয়োজিত উচ্চ পর্যায়ের এক বৈঠকে এই প্রতিশ্রুতির কথা তুলে ধরেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।  

জাতিসংঘ সদরদপ্তরের সাধারণ পরিষদ হলে আয়োজিত বৈঠকে মন্ত্রী বলেন, ‘উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের জন্য শান্তি ও নিরাপত্তা বজায় রাখতে শান্তিরক্ষা কার্যক্রমকে একটি ভারসাম্যপূর্ণ ও সুসংগত দৃষ্টিভঙ্গির মাধ্যমে এগিয়ে নিতে হবে। ’ জাতিসংঘ শান্তিরক্ষায় মাঠ পর্যায়ে আরো বেশি সংখ্যায় নারী পুলিশ মোতায়েন এবং সিনিয়র পদে নারী পুলিশ কর্মকর্তা বাড়ানোর প্রচেষ্টার প্রশংসা করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

এসময় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত মুহাম্মদ আবদুল মুহিত এবং বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক ড. বেনজীর আহমেদ।  

এদিকে বিকেলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী স্থায়ী মিশনে ইউএন উইমেন এর ডেপুটি এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর অনিতা ভাটিয়ার সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করেন। বৈঠকে নারী শান্তি ও নিরাপত্তা এজেন্ডা এবং লিঙ্গ সংবেদনশীল বাজেট প্রবর্তনের ক্ষেত্রে নারী উন্নয়নে নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য জাতিসংঘের ঐ কর্মকর্তা বাংলাদেশের প্রশংসা করেন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও ইউএন উইমেন এর ডেপুটি এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর উভয়েই সক্ষমতা ও সচেতনতা বাড়ানো কর্মসূচির মাধ্যমে সাইবার সহিংসতাসহ নারীর প্রতি সহিংসতা রোধে সম্ভাব্য সহযোগিতা এবং জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে নারীদের অংশগ্রহণ বৃদ্ধির বিষয়ে আলোচনা করেন।

উপরে