প্রকাশিত : ৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ১৪:০৯

ভারতের ট্রানজিট পণ্য চট্টগ্রাম বন্দরে, যাবে আসাম

অনলাইন ডেস্ক
ভারতের ট্রানজিট পণ্য চট্টগ্রাম বন্দরে, যাবে আসাম

ট্রানজিটের আওতায় বাংলাদেশ হয়ে ভারতে পণ্য পরিবহনের আরেকটি পরীক্ষামূলক (ট্রায়াল রান) চালান কলকাতার শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জী বন্দর থেকে চট্টগ্রাম বন্দরে এসেছে।

মঙ্গলবার (৬ সেপ্টেম্বর) রাত ৮টার দিকে ট্রানজিটের এক কনটেইনার পণ্যসহ (রড) এমভি ট্রান্স সামুদেরা নামের জাহাজটি চট্টগ্রাম বন্দরের এনসিটি জেটিতে ভিড়ে। বন্দরের শক্তিশালী টাগ কাণ্ডারি ১১ জাহাজটিকে বার্থিংয়ে সহযোগিতা করে।

এর আগে, রোববার (৪ সেপ্টেম্বর) সকাল ৬টায় জাহাজটি কলকাতা থেকে রওনা দিয়েছিল। জাহাজটির লোকাল এজেন্ট ম্যাংগো লাইন লিমিটেড। ২০১৮ সালে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে সম্পাদিত ‘অ্যাগ্রিমেন্ট অন দ্য ইউজ অব চট্টগ্রাম অ্যান্ড মোংলা পোর্ট ফর মুভমেন্ট অব গুডস টু অ্যান্ড ফ্রম ইন্ডিয়া’ চুক্তির আওতায় এ চালান আসছে। যা সড়ক পথে শ্যাওলা (সিলেট)- সুতারকান্দি (ভারত) স্থলবন্দর দিয়ে আসাম নেওয়া হবে।

২০২০ সালে এমভি সেঁজুতি জাহাজে কলকাতা বন্দর থেকে চট্টগ্রাম বন্দরে ট্রানজিটের চার কনটেইনার পণ্য এসেছিল। গত মাসে মোংলা বন্দর দিয়ে ট্রানজিটের আরেকটি সফল ট্রায়াল রান সম্পন্ন হয়েছে। চলতি সপ্তাহে মেঘালয় থেকে চায়ের কনটেইনার ডাউকি-তামাবিল হয়ে চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে কলকাতা বন্দরে পাঠানোর পরিকল্পনা রয়েছে।

চট্টগ্রাম বন্দরের এনসিটির দায়িত্বে থাকা টার্মিনাল অপারেটর সাইফ পাওয়ারটেকের চিফ অপারেটিং অফিসার ক্যাপ্টেন তানভীর হোসেন জানান, এনসিটি ১ জেটিতে মোবাইল হারবার ক্রেনের সাহায্যে দ্রুত কনটেইনার নামানোর ব্যবস্থা রয়েছে। ট্রানজিট পণ্যভর্তি কনটেইনারটি বন্দরের বিভাগের বিশেষ তত্ত্বাবধানে রাখা হবে। কাস্টমসের আনুষ্ঠানিকতা শেষে কনটেইনারটি সড়কপথে সিলেট চলে যাবে।

উপরে